শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ০৫:২৪ অপরাহ্ন

শুরুটা দ্যুতিময়ই হলো গিগসের

শুরুটা দ্যুতিময়ই হলো গিগসের

নব্বইয়ের দশকের শুরুতে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড পেয়েছিল একঝাঁক প্রতিভাবান ফুটবলার। শীর্ষ এই ইংলিশ ক্লাবটির জার্সি গায়ে প্রায় একই সঙ্গে যাত্রা শুরু করেছিলেন রায়ান গিগস, ফিল নেভিল, পল স্কোলস, নিকি বাট, ডেভিড বেকহাম ও গ্যারি নেভিল। ক্যারিয়ারের বেশির ভাগ সময় একসঙ্গেই খেলেছেন এই ছয় ফুটবলার। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও উঠেছিল সাফল্যের স্বর্ণশিখরে। এখন আবারও ম্যানইউয়ের ত্রাতা হিসেবে দেখা যাচ্ছে সেই পুরোনো তারকাদেরই। তবে এবার খেলোয়াড় হিসেবে না, গিগস-স্কোলসদের দেখা যাচ্ছে কোচের ভূমিকায়।

গতকাল ম্যানইউয়ের কোচ হিসেবে অভিষেক হয়েছে গিগসের। ডাগ-আউটে তাঁর সহকারী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিকি বাট, ফিল নেভিল ও স্কোলস। অভিষেক ম্যাচেই দ্যুতি ছড়িয়েছেন কোচ গিগস। নরউইচ সিটির বিপক্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড জিতেছে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে। জোড়া গোল করেছেন ওয়েইন রুনি ও হুয়ান মাতা।

কিংবদন্তি কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসনের অবসরের পর ভয়াবহ বিপর্যয়ের মুখেই পড়েছিল রেড ডেভিলরা। নতুন কোচ ডেভিড ময়েসের তত্ত্বাবধানে রীতিমতো ভরাডুবি হয়েছে ইউরোপের অন্যতম সেরা এই ক্লাবটির। এ রকম বাজে মৌসুম খুব কমই কাটিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সেই ব্যর্থতার দায়ে বরখাস্তও করা হয়েছে ময়েসকে। আর তাঁর জায়গায় অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন গিগস।

পাকাপাকিভাবেও কোচের দায়িত্ব পেলে যে খারাপ করবেন না, সেটাই যেন গতকাল দেখিয়ে দিলেন এই মিডফিল্ডার। ডাগ-আউটে তাঁর উপস্থিতি যেন নতুনভাবেই উজ্জীবিত করেছে রুনিদের। ইতিমধ্যেই খেলোয়াড়দের সমর্থনও পেয়ে গেছেন গিগস। ম্যাচশেষে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার মাতা বলেছেন, ‘গিগসের তত্ত্বাবধানে খেলতে পারাটা আমার জন্য সত্যিই আনন্দের ব্যাপার। আমি যখন ছোট ছিলাম, তখন তাঁকে খেলতে দেখেছি। আর তিনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জন্য যথার্থ ব্যক্তি। কিন্তু কোচ কে হবেন, সেই সিদ্ধান্তটা আমাদের ওপর নির্ভর করছে না।’

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..

ে ি মতামত

  1. innotech বলেছেন:

    ভাল লাগলো

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com