মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১০:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
টাংগাইল বন বিভাগের দোখলা সদর বন বীটে সুফল প্রকল্পে হরিলুট আগ্রাবাদ ফরেস্ট কলোনী বালিকা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হলেন মোজাম্মেল হক শাহ চৌধুরী ফৌজদারহাট বিট কাম চেক স্টেশন এর নির্মানাধীন অফিসের চলমান কাজ পরিদর্শন নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করায় দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ ২০৪১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবে: শেখ সেলিম সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের করমজল ইকোট্যুরিজম কেন্দ্র চলছে সীমাহীন অনিয়ম এলজিইডির কুমিল্লা জেলা প্রকল্পের পিডি শরীফ হোসেনের অনিয়ম যুবলীগে পদ পেতে উপঢৌকন দিতে হবে না: পরশ নির্বাচন যুদ্ধক্ষেত্র নয়, পেশি শক্তির মানসিকতা পরিহার করতে হবে: সিইসি যুদ্ধ না, আমরা শান্তি চাই : প্রধানমন্ত্রী

ঈশিতার ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১
  • ৯৩ পাঠক পড়েছে

বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধি পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া ইশরাত রফিক ঈশিতা (৩৪) ও তার সহযোগী শহিদুল ইসলামের (২৯) ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

২ মামলায় প্রত্যেকের ৩ দিন করে মোট ৬ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আসাদুজ্জামান।

সোমবার তিনি বলেন, ঈশিতা ও তার সহযোগী শহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে রাজধানীর শাহ আলী থানার পৃথক দুই মামলায় এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এর আগে দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয় ঈশিতা ও শহিদুলকে। তাদের বিরুদ্ধে শাহ আলী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ও প্রতারণার মামলায় ৫ দিন করে মোট ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমামের আদালত শুনানি শেষে রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

এর আগে রোববার (১ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ থেকে ২০১৩ সালে (সেশন ২০০৫-২০০৬) এমবিবিএস সম্পন্ন করেন ইশরাত রফিক ঈশিতা। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ওই বেসরকারি মেডিকেল কলেজের নাম ‘কমিউনিটি বেইজড মেডিকেল কলেজ বাংলাদেশ’ সিবিএমসি। ২০১৪ সালে মিরপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে যোগ দেন ঈশিতা। তবে ৪ মাসের মাথায় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে চাকরিচ্যুত হন তিনি। এরপরই শুরু হয় তার বহুমুখী প্রতারণা।

খন্দকার আল মঈন বলেন, ‘এমবিবিএসের বাইরে তার আর কোনো ডিগ্রি না থাকলেও তিনি নিজেকে চিকিৎসা শাস্ত্রের বিভিন্ন বিষয়ে বিশেষজ্ঞ হিসেবে সবার সামনে তুলে ধরেন। চিকিৎসাবিজ্ঞানী ও গবেষক হিসেবেও পরিচয় দেন তিনি।’

‘এমপিএইচ, এমডি, ডিও-সহ নানা ভুয়া বিশেষজ্ঞ ডিগ্রি ব্যবহার শুরু করেন ঈশিতা। ভুয়া ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ হিসেবেও বিভিন্ন মতবাদ প্রচার করতে থাকেন তিনি। চিকিৎসাবিষয়ক বিভিন্ন ওয়েবসাইটের গবেষণাধর্মী প্রবন্ধ, আর্টিকেল বা থিসিস পেপারের ভুয়া প্রকাশনাও ব্যবহার করেন তিনি।’

শুধু তাই নয়, তিনি নিজেকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হিসেবেও পরিচয় দেন। করোনাকালেও থামেনি তার প্রতারণা। দুই দফায় ৬০ চিকিৎসককে তিনি সেমিনারের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দেন। শেষমেশ ধোপে টেকেনি তার বহুমুখী প্রতারণা। পুলিশের এলিট ফোর্স র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) হাতে রাজধানীর মিরপুর থেকে গ্রেফতার হন ভুয়া বিশেষজ্ঞ ও দেশি-বিদেশি বিভিন্ন সংস্থার ভুয়া প্রতিনিধি পরিচয় দেওয়া বহুমুখী প্রতারক ইশরাত রফিক ঈশিতা (আইপিসি)।

র‍্যাব সদরদফতরের গোয়েন্দা শাখা ও র‍্যাব-৪ এর অভিযানে রোববার (১ আগস্ট) সকালে রাজধানীর মিরপুর-১ থেকে ঈশিতা (৩৪) ও তার সহযোগী শহিদুল ইসলাম ওরফে দিদারকে (২৯) গ্রেফতার করা হয়।

ঈশিতার বাবার নাম খন্দকার রফিকুল ইসলাম। ঢাকার কাফরুলে বসবাস করে আসছিলেন তিনি।

র‍্যাবের ওই অভিযানে ভুয়া আইডি কার্ড, ভুয়া ভিজিটিং কার্ড, ভুয়া সিল, ভুয়া সার্টিফিকেট, প্রত্যয়নপত্র, পাসপোর্ট, ল্যাপটপ, ৩০০ পিস ইয়াবা, পাঁচ বোতল বিদেশি মদ ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by ThemesBazar.Com
SheraWeb.Com_2580