বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০১:৫৭ পূর্বাহ্ন

জামিনের মেয়াদ বাড়ল রন হক সিকদারের

নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১
  • ৫৩ পাঠক পড়েছে

রাজধানীর গুলশান থানায় দায়ের করা হত্যাচেষ্টা মামলায় সিকদার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রন হক সিকদারের জামিনের মেয়াদ ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়েছেন আদালত।

নির্ধারিত জামিনের মেয়াদ শেষে বুধবার আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন রন হক। এরপর ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালত ১১ এপ্রিল পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

বাবা মারা যাওয়ায় বিশেষ বিবেচনায় গত ১২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমামের আদালত ১০ মার্চ পর্যন্ত রন হক সিকদারের জামিন মঞ্জুর করেছিলেন। ওই দিন সকালেই হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গ্রেফতার হয়েছিলেন রন।

এক্সিম ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে নির্যাতন ও গুলি করে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে সিকদার গ্রুপ অব কোম্পানিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদারের বিরুদ্ধে রাজধানীর গুলশান থানায় গত বছর মামলা করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়, গত ৭ মে রন ও দিপু এক্সিম ব্যাংকের এমডি মুহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মুহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে একটি অ্যাপার্টমেন্টে বন্দি করে রাখেন। এমনকি তাদের গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয়।

মামলায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আরও উল্লেখ করে, নির্যাতনের একপর্যায়ে সাদা কাগজে সই নিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। সিকদার গ্রুপ ব্যাংকটির কাছে ৫০০ কোটি টাকা ঋণ প্রস্তাব দিলে এর বিপরীতে গ্রুপের বন্ধকি সম্পত্তি পরিদর্শনে যান ব্যাংকের দুই কর্মকর্তা। সে সময় এ ঘটনা ঘটে। এতে আরও বলা হয়েছে, গ্রুপের এমডির দাবির তুলনায় বন্ধকি সম্পত্তির মূল্য কম ছিল।

মামলা হওয়ার পর থেকে পলাতক ছিলেন রন ও দিপু। ১০ ফেব্রুয়ারি দুবাইয়ে বাংলাদেশ সময় আনুমানিক রাত ২টায় রন হক সিকদারের বাবা বিশিষ্ট শিল্পপতি সিকদার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার ও বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল হক সিকদার মারা গেলে দেশে ফিরে বিমানবন্দর থেকেই গ্রেফতার হন রন হক সিকদার।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by ThemesBazar.Com
SheraWeb.Com_2580