শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন

নরসিংদী সদর হাসপাতাল থেকে ২ দিনের নবজাতক চুরি

নরসিংদী প্রতিনিধি 
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ৯ মে, ২০২১
  • ১৩৮ পাঠক পড়েছে

নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা দুই দিন বয়সী এক ছেলে নবজাতক চুরির ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার দুপুরের দিকে এই চুরির ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। চুরি হওয়া নবজাতক নরসিংদী সদর উপজেলার মহিষাশুড়া ইউনিয়নের চান্দেরপাড়া এলাকার প্রসূতি সুমাইয়া আক্তারের ছেলে।

পরিবার ও পুলিশ জানায় , গত শুক্রবার সন্ধ্যায় নরসিংদী সদর হাসপাতাল সংলগ্ন একটি বেসরকারি হাসপাতালে সুমাইয়া আক্তারের সিজারিয়ান অস্ত্রোপচার করে এক ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। পরে ঠান্ডাজনিত সমস্যা দেখা দেয়ায় রবিবার দুপুরে চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে নরসিংদী সদর হাসপাতালের ২য় তলায় বহির্বিভাগে নিয়ে আসেন নবজাতকের নানি পরিবানু।

এ সময় হাসপাতালে রোগীর লম্বা সিরিয়াল ছিল। সিরিয়াল এগিয়ে আনার চেষ্টা করার জন্য নবজাতকের নানি পরিবানুকে পরামর্শ দেয় পাশে থাকা অজ্ঞাত এক নারী। একপর্যায়ে নবজাতক নাতিকে অজ্ঞাত ওই নারীর কোলে দিয়ে সিরিয়ালের খবর নিতে সামনে এগিয়ে যান নবজাতকের নানি পরিবানু। এই সুযোগে কয়েক মিনিটের মধ্যেই ওই নবজাতককে নিয়ে উধাও হয়ে যায় অজ্ঞাত ওই নারী।

খবর পেয়ে নরসিংদী সদর মডেল থানা-পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও সিসিটিভি ফুটেজ দেখে নবজাতক চুরিতে অভিযুক্ত ওই নারীকে চিহ্নিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

নবজাতকের নানি পরিবানু বলেন, শিশুটিকে যদি না পাওয়া যায় তাহলে আমার মেয়ের সংসার নষ্ট হয়ে যাবে। আমি আমার নাতিকে ফিরে পেতে চাই। হারানো ধনকে বুকে পেতে চাই।

চুরি হওয়া নবজাতকের খালা মুলমেহের বেগম বলেন, হাসপাতাল থেকে যদি বাচ্চা চুরি হয় সেখানে আর কি করার আছে। আমরা আমাদের নবজাতক ফেরত চাই।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আমিরুল হক শামীম বলেন, সদর হাসপাতালে নবজাতক চুরির মতো ন্যক্কারজনক ঘটনা এই প্রথম। নবজাতককে উদ্ধার ও অভিযুক্ত ওই নারীকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের জন্য হাসপাতালের সিসিটিভি ক্যামেরা পর্যবেক্ষণ করছে পুলিশ। আমরাও হাসপাতালের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করছি।

নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার দত্ত চৌধুরী বলেন, নানির কোল থেকেই শিশু চুরি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে পুলিশ কাজ করছে। তবে এখন পর্যন্ত থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by ThemesBazar.Com
SheraWeb.Com_2580