বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৭ অপরাহ্ন

ভূমিসহ ঘর পাচ্ছে আরও ৫৩ হাজার পরিবার

নিউজ ডেক্স:
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১
  • ৩২ পাঠক পড়েছে

দ্বিতীয় দফায় আরও ৫৩ হাজার ৩৪০টি পরিবারকে জমি ও পাকা ঘর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস। যা আগামী ২০ জুন (রোববার) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন।

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি। আহমদ কায়কাউস বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ৫৩ হাজার ৩৪০টি পরিবারকে বিনামূল্যে দুই শতক জমি ও আধাপাকা ঘর করে দেওয়া হচ্ছে। ২০ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর উদ্বোধন করবেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মাহবুব হোসেন, উপ-পরিচালক (উপ সচিব) জাহেদুর রহমান প্রমুখ।

মুখ্য সচিব বলেন, মুজিববর্ষে ‘বাংলাদেশের কোনো মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রীর এ নির্দেশনা বাস্তবায়নে দেশের সব ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর দেওয়ার কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এরই মধ্যে চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি ১ম পর্যায়ে দুই কক্ষ বিশিষ্ট আধা পাকা ঘর ও ব্যারাকে ৬৯ হাজার ৯০৪টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে বিনামূল্যে জমিসহ ঘর দেওয়ার কার্যক্রম উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

আগামী ২০ জুন দ্বিতীয় দফায় আরও ৫৩ হাজার ৩৪০টি পরিবারকে (স্বামী ও স্ত্রীর যৌথনামে) বিনামূল্যে জমিসহ ঘর প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন। এ বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে আরও এক লাখ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও ঘর প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে।

ড. আহমদ কায়কাউস জানান, এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে সরকারের সিনিয়র সচিব ও সচিবরা তাদের নিজস্ব অর্থায়নে ১৬০টি পরিবারকে দুইকক্ষ বিশিষ্ট আধা পাকা ঘর তৈরি করে দিয়েছেন।

এছাড়াও জলবায়ু উদ্বাস্তু পরিবারকে বহুতল ভবনে একটি করে ফ্ল্যাট দেওয়ার মাধ্যমে এ পর্যন্ত ৪ হাজার ৪০৯টি পরিবারকে খুরুশকুল বিশেষ আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে।

ড. আহমদ কায়কাউস বলেন, করোনার ভ্যাকসিনের জন্য আমরা পৃথিবীর সব জায়গায় চেষ্টা করেছি। যেখান থেকে পেয়েছি, তুলনামূলক কম মূল্যেই পেয়েছি। আরও পেতে দিনরাত চেষ্টা করে যাচ্ছি। টিকা কেনার জন্য বিভিন্ন রাষ্ট্রের সঙ্গে যোগাযোগের পাশাপাশি নিজেরাও উৎপদানের চেষ্টা করছি।

তিনি বলেন, আমরা এই ভ্যাকসিনের জন্য ১৪ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছি। কারো দয়া চাই না, কিনেই নিতে চাই। আশা করছি জুলাই থেকে মাস লেভেলে (সাধারণ পর্যায়ে) টিকা প্রয়োগ শুরু করতে পারব।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by ThemesBazar.Com
SheraWeb.Com_2580