শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৩৭ অপরাহ্ন

রায়হান হত্যার মূলহোতা এসআই আকবর গ্রেপ্তার

নিউজ ডেক্স:
  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ১২৯ পাঠক পড়েছে

মঞ্জুর হোসেন খান,সিলেট ব্যুরো : সিলেটের বন্দরবাজার ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনে রায়হান আহমদ নিহতের ঘটনার মূলহোতা বরখাস্ত হওয়া পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আকবর হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। সোমবার দুপুরে সিলেটের কানাইঘাটের ডোনার সীমান্ত এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক সাইফুল আলম। তবে তাকে এখন কোথায় নেয়া হয়েছে সে বিষয়ে তিনি কিছুই জানাতে পারেননি।

গত ১১ অক্টোবর ভোর রাতে রায়হানকে পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতন করা হয়। পরে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর সকাল ৭টা ৫০ মিনিটের দিকে তার মৃত্যু হয়। রায়হান ছিনতাইকালে গণপিটুনিতে মারা গেছেন পুলিশের তরফ থেকে দাবি করা হলেও নিহতের পরিবার ও স্বজনদের অভিযোগ ছিল পুলিশ ধরে নিয়ে ফাঁড়িতে নির্যাতন করে তাকে হত্যা করেছে।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরিবারের অভিযোগ ও মামলার পরিপ্রেক্ষিতে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের তদন্ত দল ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হানের মৃত্যুর সত্যতা পেয়ে জড়িত থাকায় ইনচার্জ আকবরসহ চার পুলিশকে বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করেন। বরখাস্তকৃতরা হলেন- বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ আকবর হোসেন, কনস্টেবল হারুনুর রশিদ, তৌহিদ মিয়া ও টিটু চন্দ্র দাস।

প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সদস্যরা হলেন- সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আশেক এলাহী, এএসআই কুতুব আলী ও কনস্টেবল সজিব হোসেন। তবে ঘটনার পর অন্য ছয়জন পুলিশ হেফাজতে থাকলেও আকবর পলাতক রয়েছেন। পরবর্তীতে মামলাটি পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে তদন্ত করছে পিবিআই। গত ১৪ অক্টোবর তদন্তভার পাওয়ার পর পিবিআইর টিম ঘটনাস্থল বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি, নগরের কাস্টঘর, নিহতের বাড়ি পরিদর্শন করে। গত ১৫ অক্টোবর মরদেহ কবর থেকে তোলে পুনঃময়নাতদন্ত করে পিবিআই।

নির্যাতনে নিহত রায়হান উদ্দিনের ১১১টি আঘাতের চিহ্ন উঠে এসেছে ফরেনসিক রিপোর্টে। লাঠি দ্বারা করা এসব আঘাতের ৯৭টি লীলাফোলা আঘাত ও ১৪টি ছিল জখমের চিহ্ন। আর অতিরিক্ত আঘাতের কারণে শরীরের ভেতর রগ ফেটে গিয়ে রক্তক্ষরণে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by DONET IT
SheraWeb.Com_2580