শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
টাংগাইল বন বিভাগের দোখলা সদর বন বীটে সুফল প্রকল্পে হরিলুট আগ্রাবাদ ফরেস্ট কলোনী বালিকা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হলেন মোজাম্মেল হক শাহ চৌধুরী ফৌজদারহাট বিট কাম চেক স্টেশন এর নির্মানাধীন অফিসের চলমান কাজ পরিদর্শন নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করায় দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ ২০৪১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবে: শেখ সেলিম সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের করমজল ইকোট্যুরিজম কেন্দ্র চলছে সীমাহীন অনিয়ম এলজিইডির কুমিল্লা জেলা প্রকল্পের পিডি শরীফ হোসেনের অনিয়ম যুবলীগে পদ পেতে উপঢৌকন দিতে হবে না: পরশ নির্বাচন যুদ্ধক্ষেত্র নয়, পেশি শক্তির মানসিকতা পরিহার করতে হবে: সিইসি যুদ্ধ না, আমরা শান্তি চাই : প্রধানমন্ত্রী

‘শেখ হাসিনার সরকার দেশের সবচেয়ে নারীবান্ধব সরকার’

স্টাফ রিপোর্টার:
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১
  • ৮১ পাঠক পড়েছে

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার বাংলাদেশের সবচেয়ে নারীবান্ধব সরকার।  আজকের বাংলাদেশে বিচার বিভাগ, নির্বাহী বিভাগ এবং আইনসভাসহ সব ক্ষেত্রে নারীর অংশগ্রহণ দৃশ্যমান।  বর্তমান সরকারের নারীবান্ধব নীতির কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে। শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে উইমেন এন্ড ই-কমার্স ফোরামের (উই) চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘জয়ী অ্যাওয়ার্ড ২০২১’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

ড. মোমেন বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রথম ক্ষমতায় এসেই প্রাতিষ্ঠানিক ও অর্থনৈতিকভাবে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিতকরণের এজেন্ডা নিয়েছিলেন।  শেখ হাসিনার প্রথম সরকারের সময়ে জাতীয় মহিলা উন্নয়ন নীতি প্রণয়ন এবং দ্বিতীয় মেয়াদে শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত নির্দেশনায় নারী উদ্যোক্তাদের জন্য জয়ীতা কর্মসূচি নেওয়া হয়।

বিদেশে বাংলাদেশের নারীদের কর্মসংস্থানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনগুলোতেও বর্তমানে আমাদের নারীদের নিযুক্ত করা হচ্ছে।  তিনি বলেন, বর্তমান সরকার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও নারীর ক্ষমতায়নের পাশাপাশি নারীদের বিরুদ্ধে সবধরনের বৈষম্য দূরীকরণ বিষয়ক কনভেনশন (সিডও) এবং বেইজিং প্ল্যাটফর্ম ফর অ্যাকশন বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে বাংলাদেশ আজ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহারে অনন্য উচ্চতায় পৌঁছেছে। মহামারির মধ্যেও জীবনের প্রায় সব ক্ষেত্রে দেশের মানুষ ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল ভোগ করছে উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, ই-কমার্স আজকের বাংলাদেশের প্রসারমান অর্থনীতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গে পরিণত হয়েছে।  দ্রুত বর্ধনশীল ই-কমার্সে নারীদের ব্যাপক অংশগ্রহণ নারীর ক্ষমতায়ন ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখছে।

অনুষ্ঠানে উই-এর নারী ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের মধ্য থেকে প্রতিবছরের মতো এবারও দশটি ক্যাটাগরিতে দশ জন এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আরও চারটি ক্যাটাগরিতে ৪০ জনসহ মোট ৫০ জন নারী উদ্যোক্তাকে ‘জয়ী এওয়ার্ড ২০২১’ দেওয়া হয়।  এর আগে উই-এর অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্ম ‘উইহাটবাজার’-এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মেহের আফরোজ চুমকি, লংকা-বাংলা ফাইনান্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খাজা শাহরিয়ার, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোহাম্মদ মনিরুল মওলা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন উই- এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by ThemesBazar.Com
SheraWeb.Com_2580