বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৮ অপরাহ্ন

স্বেচ্ছায় ঋণখেলাপিদের শাস্তি চায় এফবিসিসিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক 
  • প্রকাশিত সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৯ পাঠক পড়েছে

যারা ইচ্ছাকৃত ঋণখেলাপি, তাদের শাস্তি চেয়েছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই। তবে অনিচ্ছাকৃত খেলাপিদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন।

ব্যাংক এমডিদের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের বৃহস্পতিবার সকালে শুরু হওয়া মতবিনিময় সভায় এমন দাবি তুলে ধরা হয়।

এফবিসিসিআই বলছে, বেসরকারি খাতে ঋণ কেন বাড়ছে না, তা খতিয়ে দেখতে হবে। এ সময় শিল্পঋণের ডাউন্ট পেমেন্টের হার ২ শতাংশ রাখার দাবি জানানো হয়।

রাজধানীর বনানীতে একটি হোটেলে মতবিনিময় সভায় উপস্থিত আছেন ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের সংগঠন এবিবির চেয়ারম্যান ও ইস্টার্ন ব্যাংকের এমডি আলী রেজা ইফতেখার। এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবুসহ অনেকেই বক্তব্য দেন। সরকারি-বেসরকারি ৩২টি ব্যাংকের এমডি এতে উপস্থিত আছেন।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে এসএমই খাতকে এগিয়ে নিতে হবে। কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে এই খাতের বিকল্প নেই। এ জন্য প্রণোদনার ঋণ ঠিকমতো বিতরণের পাশাপাশি সহজ শর্তে জামানতবিহীন ঋণও দরকার।

তিনি বলেন, এসএমই খাতে ৫ থেকে ৭ বছর মেয়াদি ঋণের ব্যবস্থা করতে হবে। শিল্পঋণ পুনঃ তফসিলে ডাউন পেমেন্টের হার সর্বোচ্চ ১ থেকে ২ শতাংশ নির্ধারণ করলে দেশের শিল্পায়ন সহজ হবে।

সভা থেকে ব্যাংক, বিমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের আয়করের হার সাড়ে ৩৭ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩৫ শতাংশ করার দাবি জানান তিনি।

ইচ্ছাকৃত খেলাপিদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ে প্রয়োজনে এফবিসিসিআইয়ের উদ্যোগে ব্যাংকগুলোকে সহায়তা করার আহ্বান জানান আলী রেজা ইফতেখার। তিনি বলেন, ঋণ সবার জন্য ক্ষতির কারণ।

আলী রেজা বলেন, প্রণোদনা কোনো অনুদান না; এটা ঋণ। ব্যাংকগুলোকেই এই টাকা ফেরত আনতে হবে। ফলে ব্যাংকগুলো দেখেশুনে ঋণ দেবে এটাই স্বাভাবিক। আর বড় ঋণ যত সহজে দেওয়া যায়, এসএমই ঋণ তত সহজে দেওয়া যায় না।

তিনি আরও বলেন, এসএমইসহ সব ঋণে ৯ শতাংশ সুদ নির্ধারণের পর খরচ বিবেচনায় অনেকে এ খাতে ঋণ দিতে হয়তো অনীহা দেখাচ্ছে। এরপরও প্রণোদনার আওতায় প্রায় ৮০ শতাংশ ঋণ বিতরণ হয়েছে। এটা সন্তোষজনক।

নিউজটি শেয়ার করে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © 2019-2020 । দৈনিক আজকের সংবাদ
Design and Developed by ThemesBazar.Com
SheraWeb.Com_2580